অন্যের ভুলকে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখুন, নিজের ভুলের ব্যাপারে চিন্তিত হোন

ছোটবেলায় টিভিতে দেখেছিলাম “আত্মসমালোচনা করতে পারাটাই নাকি একজন জ্ঞানী ব্যাক্তির লক্ষণ”| অর্থাৎ, আমরা যদি মানুষের ভুলগুলোকে লক্ষ্য না করে নিজের ভুলcriticism[1]গুলোর ব্যাপারে সচেতন হতে পারি তাহলে আমাদের অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। আর এই বাস্তবতাটাকে এই জনমে না পারলেও; পরের জনমে ঠিকই বাস্তবায়ন করব। কিভাবে তা বাস্তবায়িত হবে এই লেখায় আমি সেটাই ফুটিয়ে তুলতে চেষ্টা করব, ইনশাআল্লাহ। আশা করি পুরো লেখাটা পড়বেন এবং আমার জন্যও একই দুআ করবেন।

রাসূলুল্লাহ (সাঃ) একবার আখিরাতের ব্যাপারে হাদীস কুদসিতে উল্লেখ করেছিলেন (সংক্ষেপে উল্লেখ করলাম), কিয়ামতের ফয়সালা শুরু হবার আগে সবাই বিভিন্ন নবী-রাসূলদের কাছে গিয়ে ধর্না দিতে থাকবেন আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করতে, যাতে তিনি (অর্থাৎ আল্লাহ) মানবজাতির সারা জীবনের কর্মের ফয়সালা শুরু করেন। সমস্ত মানবজাতি তখন আদম (আঃ) থেকে শুরু করে ঈসা (সাঃ)-এর কাছে পর্যন্ত যাবেন, কিন্তু উনারা সবাই নিজের জীবনে ঘটে যাওয়া একটি অনিচ্ছাকৃত ভুলের দোহাই দেবেন এবং বলবেন ‘নাফসি! নাফসি!’ – ‘আমার কী হবে! আমার কী হবে!’

একবার ভেবে দেখুন, নবী-রাসূলগণ যখন তাঁদের জীবনে ঘটে যাওয়া একটি মাত্র ভুল, যাও আবার অনিচ্ছাকৃত; সেটার ব্যাপারে এতই চিন্তিত থাকবেন যে আল্লাহর সামনে ভয়ে দাঁড়ানোর সাহসটুকু করতে পারবেন না; অথচ নবী-রাসূলগণ হচ্ছেন নিস্পাপ; সেখান আমি বা আপনি সেদিন কোথায় গিয়ে লুকাব? হ্যাঁ, সেদিন সমস্ত মানবজাতি নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত থাকবে, কারণ নিজের সমস্ত ভাল কাজ এবং খারাপ কাজের হিসেব আমাদেরকে সৃষ্টিকর্তার কাছে দিতে হবে।

আমরা যদি শেষ সময়ে গিয়ে এমনটিই করব; তাহলে কেন আমরা বর্তমানে নিজের ভুলগুলোর ব্যাপারে বেশি না ভেবে; অন্যের পেছনে কুৎসা রটাতে থাকি বা অন্য মানুষ কী ভুল করল বা অন্যের দোষ নিয়ে বেশি সময় ব্যয় করি?

জনাব, মানুষ ভুল করবে এটাই তো স্বাভাবিক…! তা না হলে তো আমি আপনি সবাই চিরকাল জান্নাতেই অবস্থান করতাম। যদি কেউ ভুল করে সেক্ষেত্রে আমাদের মূল কাজ হবে তাকে আড়ালে নিয়ে (সবার সামনে নয়) তা বোঝানোর চেষ্টা করা এবং তার জন্য দুআ করা। আর সে যদি তার ভুল না বোঝে তাহলে তাকে তার নিজ কৃতকর্মের উপরে ছেড়ে দেওয়া। এক্ষেত্রে বাড়াবাড়ি না করাটাই হবে একজন প্র্যাকটিসিং মুসলিমের লক্ষণ।

আসুন, আমরা সবাই আমাদের নিজেদের ভুলগুলোর ব্যাপারে বেশি চিন্তিত হই, মানুষের ভুলগুলোকে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখি এবং অন্যের কাছে গিয়ে মানুষের ভুলগুলো আলোচনা না করি। আমিন।

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s