আল্লাহকে পাওয়ার রাস্তা অনেক (অনুবাদ)

জিনান ইউসেফ-এর একটি লেখার নির্বাচিত কয়েকটি অনুচ্ছেদ থেকে অনুদিত।  

spring-179584
Photo credit: pixabay[dot]com/en/spring-bloom-nature-leaves-natur-179584/

মদিনার বিখ্যাত ইমাম, মালিক বিন আনাস (রাহিমাহুল্লাহ, ৯৩-১৭৯ হিজরি) পোশাকের ব্যাপারে ছিলেন পরিপাটি। তো, একবার তিনি একটি চিঠি পেলেন, যেখানে এজন্য তাঁকে তিরস্কার করা হয়েছে। পত্রলেখক উপদেশ দিয়ে লিখেছেন যে, দিনে নফল রোযা রাখা আর রাতে বেশি করে নফল নামায আদায়ের ব্যাপারে তাঁর মনযোগী হওয়া উচিৎ। পরিপাটি পোশাকের সাথে নফল নামায বা রোযার কী সম্পর্ক! ইমাম মালিক কতই না সুন্দরভাবে চিঠিটির উত্তর দিলেন। তিনি লিখলেন যে, রিযিককে যেভাবে বন্টন করা হয়েছে ঠিক একইভাবে ইবাদাতের কাজসমূহকেও আল্লাহ তাঁর বান্দাদের মধ্যে বন্টন করে দিয়েছেন। চিঠিটির প্রেরকের অন্তরে নফল নামায ও রোযার প্রতি রয়েছে গভীর ভালোবাসা। এটি আল্লাহর তরফ থেকেই এসেছে। একইভাবে, আমার অন্তরে রয়েছে দীনি ইলম শেখা ও শেখানোর প্রতি এক বিশেষ ভালোবাসা। এটিও আল্লাহর তরফ থেকেই এসেছে। এবং আমরা উভয়েই কল্যাণের ওপর আছি।

***

প্রতিদিন পাঁচ ওয়াক্তের ফরয নামায আদায় করা, রমযান মাসে রোযা রাখা, চরিত্রবান জীবনযাপন করা – এরকম কিছু বিষয় প্রতিটি মুসলিমকেই মেনে চলতে হয়। মুসলিম হিসেবে এগুলো মানতে আমরা বাধ্য। তবে, এরকম কয়েকটি বিষয়ের মধ্যেই ইসলাম সীমাবদ্ধ নয়। আল্লাহর মনোনীত এই দীনের ব্যাপ্তি সুবিশাল। আমরা একেকজন একেক বিষয়ে ভালো। আমাদের প্রত্যেকের আগ্রহের বিষয়বস্তুও আলাদা। ঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারলে এগুলো দিয়েই আমরা আল্লাহর নৈকট্য অন্বেষণের দিকে এগিয়ে যেতে পারি। মানুষের সাথে হাসিমুখে কথা বলা, সাধ্য অনুযায়ী মানুষকে সাহায্য করা, ব্যবসায়িক লেনদেনে সততা বজায় রাখা, এমনকি আমাদের নিয়তকে সর্বদা বিশুদ্ধ রাখা – ছোটবড় এরকম প্রতিটি কাজই আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের পথে আমাদের জন্য সহায়ক হতে পারে। ইসলাম তো আপনার ও আমার মতো মানুষের জন্যেই।

তাঁর স্বত্ত্বা, গুণাবলী ও ক্ষমতার দিক দিয়ে আল্লাহ অসীম। একইসাথে, আল্লাহর মনোনীত দীন ইসলামও প্রশস্ততার দিক দিয়ে সুবিশাল। আমাদের শুরুটা হতে হবে ফরয আমলের মধ্য দিয়ে। আল্লাহ আমাদের জন্য যা ফরয করেছেন তার সবই নিয়মিতভাবে আদায় করতে হবে। এরপর খুঁজে বের করতে হবে যে, ইসলামে বৈধ এরকম কোন কাজটি আমার সবচেয়ে ভালো লাগে যার মাধ্যমে আমি সহজেই আল্লাহকে পেতে পারি। খালিস নিয়তে আপনার পছন্দের এই বিশেষ কাজটি আপনি শুরু করুন। লেগে থাকুন। আল্লাহ আপনাকে সাহায্য করবেন। আপনার প্রচেষ্টাকে তিনি কবুল করবেন। পথ চলতে গিয়ে সময়ে সময়ে আপনি অনেক ভুল করবেন। ঘাবড়ানোর কিছু নেই। আল্লাহর দয়া অসীম। তিনি আপনার জন্য একটি ব্যবস্থা করে দেবেন। আপনার প্রতিভা ও কর্মদক্ষতাকে বিকশিত হওয়ার সুযোগ তিনি করে দেবেন।

আমাদের প্রত্যেকের জীবন আলাদা। আমাদের প্রত্যেকের জীবনের কাহিনী আলাদা। আল্লাহকে পাওয়ার জন্য আমাদের প্রত্যেকের প্রচেষ্টা ও সাধনাও আলাদা। আপনার সবই তিনি জানেন। আপনার নিয়ত ঠিক থাকলে তিনি অবশ্যই আপনাকে কবুল করে নেবেন। এজন্য আপনাকে মস্ত বড় কোনো আলেম হতে হবে না। আপনি আলেম হতে চাইলে হতে পারেন, আবার না চাইলে নাও হতে পারেন। হতে পারে যে, আপনি আল্লাহর ঘর মসজিদের পরিচ্ছন্নতাকর্মী হিসেবে নিষ্ঠার সাথে কাজ করছেন। আল্লাহর দৃষ্টিতে আপনি কতই না সম্মানিত! অথবা, হতে পারে যে, আপনার পরিবারে কোনো সমস্যা হলে আপনিই তা সবসময় মিটমাট করে দিচ্ছেন। আবার, এও হতে পারে যে, সততা ও ন্যায়পরায়ণতার দিক দিয়ে আপনি একজন অনুকরণীয় ব্যক্তিত্ত্ব। দুনিয়ার মানুষ আপনাকে নাই বা চিনল। তাতে কীই বা যায় আসে! হতেও তো পারে যে, আসমানের অধিবাসী ফেরেশতাদের কাছে আপনি অনেক প্রিয়, ঠিক ওয়ায়েস আল-কারনি-র মতো।

আল্লাহকে পাওয়ার কতই না রাস্তা আছে! আপনার রাস্তাটিকে আপনি বেছে নিয়েছেন তো?

ইংরেজিতে সম্পূর্ণ লেখাটি পড়ুন এখানে: http://www.virtualmosque.com/relationships/withthedivine/theres-room-for-you-and-me-al-waasi/

জিনান ইউসেফ-এর আরও লেখা পড়ুন এখানে: http://www.virtualmosque.com/author/jinan/ 

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this:
search previous next tag category expand menu location phone mail time cart zoom edit close